আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ-পরীক্ষা আজ!

মাদ্রিদে অনুশীলনে মেসি। কালকের ছবি। এএফপি
• স্পেনের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার প্রীতি ম্যাচ শুরু হবে রাত দেড়টায়।
• স্পেন ১৭ ম্যাচ ধরে অপরাজিত।
• এই ম্যাচে মেসি খেলবে কি না, তা খোলাসা করে বলেননি সাম্পাওলি।

লিওনেল মেসির চোট সেরেছে কি না, স্পেনের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচের আগে আর্জেন্টিনার সমর্থকদের কাছে বড় এক প্রশ্ন এটা। গত পরশু দলের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন মেসি। তবে আজ ওয়ান্ডা মেত্রোপলিতানোতে তিনি খেলবেন কি না, তা কাল পর্যন্ত নিশ্চিত ছিল না। অবশ্য এই ম্যাচে মেসির খেলা, না খেলা নিয়ে আর্জেন্টিনা কোচ হোর্হে সাম্পাওলির খুব একটা মাথাব্যথা নেই।

স্পেনের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচটি সাম্পাওলির কাছে অন্য কারণে গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা উঠেছে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে। গত ম্যাচে ইতালি বিপক্ষে জিতেছে দারুণভাবে। মেসিকে ছাড়াই। কিন্তু আজই আসল পরীক্ষা। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা কতটা কী করতে পারবে, সেটা অনেকটাই বোঝা যাবে এ ম্যাচে। স্পেন এ সময়ের সেরা দল। গত ১৭ ম্যাচে হারেনি। আর্জেন্টিনাকে খেলতেও হবে স্পেনের মাঠে। ফলে এই ম্যাচটিই হবে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ-সামর্থ্যের আসল পরীক্ষা।

রাশিয়া বিশ্বকাপে মেসির সঙ্গে আক্রমণভাগে আর কে কে থাকবেন, এই ম্যাচ সাম্পাওলির জন্য সেটা বেছে নেওয়ার বড় একটা সুযোগ। কারণ, এই ম্যাচ ছাড়া বিশ্বকাপের মূল পর্ব শুরুর আগে শুধু ইসরায়েলের বিপক্ষে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা। সেদিক থেকে স্পেন ম্যাচটি আসলে গঞ্জালো হিগুয়েইন, সার্জিও আগুয়েরো, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া ও অ্যাঙ্গেল কোরেয়ার জন্য বড় এক পরীক্ষা।

গত ম্যাচে মেসির মতো চোট নিয়ে বেঞ্চে বসে ছিলেন আগুয়েরোও। ডি মারিয়া ৬৪ মিনিট আর হিগুয়েইন পুরো ৯০ মিনিট খেললেও নজর কাড়ার মতো তেমন কিছু করতে পারেননি। আর তরুণ স্ট্রাইকার কোরেয়াকে মাঠেই নামাননি সাম্পাওলি। অন্যদিকে এই দুটি প্রীতি ম্যাচের জন্য আর্জেন্টিনা কোচ সময়ের অন্যতম সেরা উঠতি তারকা পাওলো দিবালা আর ইন্টার মিলানে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা মাউরো ইকার্দিকে দলেই রাখেননি।

স্পেনের বিপক্ষে আগুয়েরো-হিগুয়েইন-কোরেয়া-ডি মারিয়ার ভালো না খেলাই দিবালা-ইকার্দির বিশ্বকাপের দরজা খুলে দিতে পারে! সাম্পাওলি তো বলেছেনও, ‘স্পেন তো এরই মধ্যে দল পেয়ে গেছে এবং ওরা জানে বিশ্বকাপে কীভাবে খেলবে। আর আমাদের এখনো দল নিশ্চিত করা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে।’ ওটামেন্দি, মেরকাদো, রোহো ফাজিও, তাগলিয়াফিকোদের নিয়ে রক্ষণভাগটা বলতে গেলে থিতু হয়ে গেছে। মাঝমাঠেও বিগলিয়া, মাচেরানো, বানেগা, লানজিনি, লো সেলসোরা নিশ্চিতই বলা চলে। সাম্পাওলি যে আক্রমণভাগ সাজানোর কথা বলছেন, সেটা বুঝতে পারা কঠিন কিছু নয়।

স্পেন কোচ হুলেন লোপেতেগির হাতে আক্রমণভাগে বিকল্পের অভাব নেই। তবে সবার মধ্য থেকে ডিয়েগো কস্তা, রদ্রিগো মোরেনো, আলভারো মোরাতা আর ইগাও আসপাসকে বেছে নেওয়া কঠিন কাজ নয়। বাকিদের চেয়ে এঁরা অনেকটাই এগিয়ে। লোপেতেগিকে শুধু এটাই ঠিক করতে হবে, একাদশে কাকে নামাবেন। সর্বশেষ ১৭ ম্যাচে অপরাজিত থাকা স্পেনের অধিনায়ক সার্জিও রামোসের চোখ তাই শুধুই উন্নতির দিকে, ‘আমাদের পা মাটিতেই আছে। আমরা জানি, উন্নতি করার আরও জায়গা আছে। আপনি কখনোই আত্মতুষ্টিতে ভুগতে পারেন না। শুধু বলতে পারি, আমরা ঠিক পথেই আছি।’

বিশ্ব ফুটবলে আজকের প্রীতি ম্যাচের মেলায় স্পেন-আর্জেন্টিনা আর ব্রাজিল-জার্মানিসহ মাঠে নামছে ৫৮টি দল। ২৯টি ম্যাচ আর কি! তবে স্পেন-আর্জেন্টিনা আর ব্রাজিল-জার্মানি ছাড়া বিশেষ করে বলার মতো ম্যাচ আর দুটিই-ফ্রান্স-রাশিয়া ও ইংল্যান্ড-ইতালি।

     More News Of This Category