‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে মিসর’

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকবে মিসর। মিসরের এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদ থারওয়াত এ কথা জানিয়েছেন।

আজ রোববার বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হকের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মিসরের মন্ত্রী খালেদ থারওয়াত। রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মিসরের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদ থারওয়াত বলেন, ‘মিসর তার অতীত অভিজ্ঞতা থেকে ভালো করেই জানে এ ধরনের শরণার্থীদের চাপ মোকাবিলা করা কতটা কঠিন, যা এখন বাংলাদেশকে অভিজ্ঞতা নিতে হচ্ছে।’

পরে দুই দেশের মধ্যে একটি সমঝোতা স্বারক স্বাক্ষরিত হয়। ওই সমঝোতা স্মারকের আওতায় মিসর ও বাংলাদেশের নবীন কুটনীতিকরা একে অন্যের দেশে গিয়ে অভিজ্ঞতা নিতে পারবেন। এ সময় ঢাকায় নিযুক্ত মিসরের রাষ্ট্রদূত ওয়ালিদ আহমেদ সামসেলদিন উপস্থিত ছিলেন।

গত বছর আগস্টের শেষদিকে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে থাকে। মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর নির্যাতনের শিকার হয়ে এসব রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আসতে শুরু করে। কক্সবাজার ও বান্দরবানের বিভিন্ন এলাকা দিয়ে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে প্রবেশ করে। সরকারি হিসেব অনুযায়ী দেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গার সংখ্যা এখন ৯ লাখেরও বেশি। কক্সবাজার ও বান্দরবানে রোহিঙ্গাদের জন্য করা হয়েছে একাধিক আশ্রয়কেন্দ্র। এরমধ্যে কক্সবাজারের উখিয়ায় কুতুপালং ও বালুখালীতে করা হয়েছে বড় ধরণের আশ্রয়কেন্দ্র।

বিশ্বের প্রভাবশালী একাধিক দেশ ও সংস্থা রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে থাকার কথা জানিয়েছে। একইসঙ্গে বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা থেকে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সাহায্য করা হচ্ছে।

     More News Of This Category